1. admin@ourbhola.com : আমাদের ভোলা : আমাদের ভোলা
সোনালি সমাজ আজ স্বপ্ন বটে, কতজন কাজ করে গঠন করতে? ::::: মোঃ রাসেল মাহমুদ - আমাদের ভোলা
বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫২ অপরাহ্ন
নোটিশঃ
প্রিয় ভিজিটর, দ্বীপজেলা ভোলার বৃহত্তম ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম...

সোনালি সমাজ আজ স্বপ্ন বটে, কতজন কাজ করে গঠন করতে? ::::: মোঃ রাসেল মাহমুদ

  • আপডেটের সময় : সোমবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২০
  • ৭৫৩ বার পঠিত

সোনালি সমাজ আজ স্বপ্ন বটে।
কতজন কাজ করে গঠন করতে?

আসুন একটু গভীরে যাই- যখন খুব ছোট ছিলাম তখন তো আর স্কুলে যেতাম না। বুঝতাম না পড়ালেখা কি জিনিস। বুঝতাম না ভালো আর মন্দ। আস্তে আস্তে একটু বড় হলাম আর যথাক্রমে স্কুল,মাদরাসা,কলেজের গন্ডি পেরিয়ে ভার্সিটিতে গেলাম।

জানতে শুরু করলাম গভীর থেকে অনেক গভীরে। বুঝতে পারলাম জাতি বলে কিছু আছে। তার মাঝে জাতি হিসেবেও নাকি ভালো খারাপ হয়। জাতির থেকে একটু নিচে নেমে দেখলাম মানুষের তৈরি নাকি সমাজও আছে।

জানতে শুরু করলাম সমাজ নিয়ে। বুঝতে পারলাম না এর শেষ কোথায়? হতাশ হলাম না,এগিয়ে চলতে চলতে সমাজের সংঙ্গা বুঝলাম,বুঝলাম সমাজের মানুষের কথা,শুনলাম সমাজের নেতা নামে কিছু কুলাঙ্গার পাতি নেতার কথা। মানুষ বলে সোনালি সমাজ চাই, ওমরের যুগ চাই, চাই রাশেদার যুগ।

তখন প্রশ্ন জাগে এই যুগ কি খারাপ? সোনালি সমাজ,ওমর,রাশেদার যুগ মানুষ কেন চায়? জানতে শুরু করলাম সেই সমাজ আর যুগের ইতিকথা। শেষ কোথায় সেই যুগ আর মহৎ মানুষের খুঁজে পেলাম না। দুটি যুগের, সমাজের, ব্যক্তিদের তুলনা করলাম।এবার ধমকে গেল মন।মনে হয় ভেঙ্গে চূড়মার হয়ে যাবে সব। কিন্তু এ সমাজে আমি নিজেই তো এখন অসহায়।

কাউকে কিছু নয় ভাবতে লাগলাম এই সমাজের চিত্র। প্রথমেই ফুটে উঠল হাসি মাখা চাঁদ মুখের পেছনের অন্ধকারাচ্ছন্ন একটি চরিত্র। আমি ভয় পেয়ে গেলাম। আর ভাবলাম জনতা কি আমার মতো এই সামনের দৃশ্য দেখে না? নাকি পেছনের দৃশ্য দেখে।

ফিরে গেলাম সমাজের নিরীহ মানুষের কাছে জানতে পারলাম তারাও আমার মতো হাসি মাখা চাঁদ মুখটাই দেখে তবে, যখন তাদের প্রয়োজন তখন কালো চরিত্র টাই দেখে সুন্দর চেহারা আর থাকেনা। প্রশ্ন জাগলো মানুষের নেতা তার মানি মানুষই তো তাকে নেতা করল।তাহলে নেতা কেন তাদের উপর এমন ব্যবহার করে?
জানতে শুরু করি হাসিমাখা চাঁদ মুখের পেছনের চরিত্র। আমি অভাক হয়ে গেলাম। কি সেই চরিত্র, যা দেখে সমাজের মানুষ না খেয়ে মরে তবু তাদের কাছে যায় না।

কি সেই চরিত্র, যার কারণে মানুষ তাদের সামনে দাঁড়াতে পারে না।কি সেই চরিত্র, যার কারণে নিজের সম্পদ তারা আত্মস্বাধ করে নিলেও কিছু বলতে পারে না।

সে তো এক হৃদয় নিংরানো কালো ছায়ার চরিত্র। যার কাছে নিজের পরিবার পরিজনও হেরে যায়।হেরে যায় স্বাধীন দেশের স্বাধীন মানুষ গুলো। হেরে যায় ব্যক্তি স্বাধীনতার কাছে।
তবে, কে করবে নির্মান এই সমাজ? আসবে কি এ সমাজে শান্তির সুবাতাস? এভাবে শুধু আমার না একটি দেশের,একটি জাতির আর প্রতিটি সমাজের প্রত্যেক মানুষের হাজারো প্রশ্ন – কবে হবে এর অবসান? কবে পাবো একটি সোনালি সমাজ?

তাই হয়তো গানের সুরে বলেছেন-

♥♥♥প্রভু তুমি বলেছো রাসূল দেবে না,
বলোনি দেবে না ওমর,
বলোনি দেবেনা হামজা তারই খালিদ বিজয়ী সমর♥♥♥

সবার আজ একটি প্রার্থনা সোনালি যুগের একজন বীর দাও।যে আবার ফিরিয়ে আনবে রাশেদার যুগ।

Spread the love

আপনার ফেসবুক আইডি থেকে কমেন্ট করুন

উক্ত লেখাটি সোসাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো লেখা
© All rights reserved © 2021 আমাদের ভোলা
Development By MD Rasel Mahmud