1. admin@ourbhola.com : আমাদের ভোলা : আমাদের ভোলা
শিক্ষাবিদ,সাংবাদিক ও আবৃত্তিকার ফারুকুর রহমান – আমাদের ভোলা
নোটিশ :
প্রিয় ভিজিটর, দ্বীপজেলা ভোলার বৃহত্তম ওয়েবসাইটে আপনাকে স্বাগতম...

শিক্ষাবিদ,সাংবাদিক ও আবৃত্তিকার ফারুকুর রহমান

  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ১৪ এপ্রিল, ২০২০
  • ৫৬৩ বার পড়েছেন

অধ্যক্ষ ফারুকুর রহমান
 
পিতা:  
মাতা:  
ঠিকানা:ভোলা সদর 
জন্ম:২০/৪/১৯৪৯ 
খ্যাতির কারন:১৯৭৩ সনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলা ও সাহিত্যে এমএ পাশ করেন। ১৯৭৪ সাল থেকে ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত সরকারি ফজিলাতুন নেসা মহিলা কলেজ এবং ১৯৮৭ সালের ১লা এপ্রিল থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত নাজিউর রহমান কলেজের অধ্যক্ষ ছিলেন। আবৃত্তিকার, নাট্যশিল্পী হিসেবে শতাধিক নাটকে অংশগ্রহণ করেন।

অধ্যক্ষ এম ফারুকুর রহমান। একজন শিক্ষাবিদ কিম্বা একজন সাংবাদিক নেতা হিসেবে তাকে পরিচিত করতে গেলে চরম কৃপনতা হবে। তিনি ভোলা সদর উত্তরের অবহেলিত অঞ্চলের শিক্ষার বাতিঘর। যে অন্ধকার অঞ্চলের শিক্ষার বাতি জ্বালানোর চ্যালেঞ্জ নিয়ে সফলও হয়েছেন। আমাদের ভোলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ভোলা জেলা ইত্তেফাক প্রতিনিধি গত একযুগ ধরে পুরুষ শাসিত সমাজে মা এর সম্মান কুড়ানোর ফেরি করে বেড়াচ্ছেন আমাদের ভোলার সকলের প্রিয় এ মানুষটি। তার এই শ্লোগানটি বাংলাদেশ পেরিয়ে দেশের বাহিরেও উচ্চারিত হচ্ছে। তাঁর ফেইসবুকে মা নিয়ে দেয়া এই স্টাটাসটি ভোলা নিউজের পাঠকদের জন্য তুলে ধরলাম।……

আপনিও বলুন,
“অামার মা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ নারী”
এটি শুরুর কথা হলেও গোড়ার কথাটা একটু বলি।
২০০৬ সালের ৬ মার্চ উত্তর বাংলার একটি সংবাদপত্রে দেখলাম পাষন্ড সন্তান তার মা’কে বেদম ভাবে প্রহার করে রাস্তার উপরে ফেলে রেখেছে! এলাকাবাসি ঐ বৃদ্ধা মা’কে হাসপাতালে ভর্তি করেন এবং দূর্বৃত্ত ছেলেকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করে৷ পত্রিকার পরের সংখ্যাটি না পাওয়ার কারনে অামি অার জানতে পারলাম না যে মহিলা বেঁচে অাছেন কি নেই!

বিষয়টি পড়ে আমি একেবারেই অার অামার মধ্যে ছিলাম না৷ এতোটাই ব্যথিত হয়েছিলাম।
সমস্ত রাত নির্ঘুম কাটিয়ে একটা সিদ্ধান্ত নিলাম আমার পৃথিবীর শ্রেষ্ট নারী” কথাটিকে একটি স্লোগান হিসাবে প্রচার করবো৷ কেননা অামার মতো ছা-পোষা দরিদ্র শিক্ষকের পক্ষে বড় অাকারের কোন কিছু করা সম্ভব নয়। তাবৎ পৃথিবীর সন্তানেরা অান্তরিক ভাবে মন প্রান দিয়ে যদি বিশ্বাস করে তাকে যিনি জন্ম দিয়েছেন সেই পৃথিবীর শ্রেষ্ট নারী। এই জন্য যে কতো কষ্ট ক্লেস কতো লাঞ্ছন, কতো গণজনা বয়ে গেছে তার উপর দিয়ে তা কেবল তিনিই জানেন। জগৎ সংসারের প্রতিটি মা’ই ১০মাস ১০ দিন এই সন্তানকে পেটে ধারন করেছেন। এবং জন্মের পর থেকেই অভাব অনটনের মধ্য দিয়ে সন্তাকে বড় করে তুলেছেন। কাজেই সেই মা’ই তো পৃথিবীর শ্রেষ্ট নারী৷

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আপনার ফেসবুক আইডি থেকে কমেন্ট করুন

উক্ত লেখাটি সোসাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো লেখা
© All rights reserved © 2019 আমাদের ভোলা
Developed BY Mohona IT